স্থানীয় সাংসদ নুরুল আমিন রুহুল এমপি বলেছেন, শিক্ষার্থীরা সুশিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে এলাকায় বাতিঘর হিসেবে আলো জ্বালাবে। বর্তমান সরকার শিক্ষাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েছেন। তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীদের হাতে পাঠ্য বই তুলে দিতে পেরেছেন। এ জন্যে ১ জানুয়ারী বই উৎসব পালিত হচ্ছে। অনুষ্ঠানে তিনি সরকারের উন্নয়নের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন।

২০ ডিসেম্বর রোববার সকাল ১১ টায় মতলব দক্ষিণ উপজেলার নারায়ণপুর ডিগ্রি কলেজের আয়োজনে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও মাক্স বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের একান্ত সচিব ও কলেজ গভর্নিং বডির সভাপতি মো.সাইফুল ইসলাম খোকন (উপ-সচিব) এর সভাপতিত্বে এবং কলেজের উপাধ্যক্ষ মো. মোসলেহ উদ্দিনের সঞ্চালনায় এমপি আরও বলেন যোগ্য শিক্ষার্থীদের নেতৃত্বে এগিয়ে যাবে আমাদের প্রিয় বাংলাদেশ।

কোভিড-১৯ পরিস্থিতি আমাদের সুশিক্ষার পথে বাঁধা হতে পারবেনা ইনশাআল্লাহ। শিক্ষার্থীদের মেধাবিকাশের পরিবেশ তৈরিতে বর্তমান সরকার বদ্ধপরিকর। আমরা সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে সে লক্ষেই কাজ করে যাচ্ছি। এসময় এমপি কলেজের নিম্নভূমি ভরাট, হোস্টেল নির্মাণ, একাডেমিক ভবন নির্মাণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার আশ্বাসও দেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মতলব দক্ষিণ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বিএইচএম কবির আহমেদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহমিদা হক, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. মবিন সুজন প্রধান, মতলব দক্ষিণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মহিউদ্দিন মিয়া, নারায়ণপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা বজলুর রশিদ মজুমদার প্রমুখ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ রুহুল আমিন।

ছাত্র-ছাত্রীদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ আল মাসুম। অনুষ্ঠানে পবিত্র কুরআন তিলাওয়াত করেন কলেজের ইসলামি শিক্ষা বিভাগের প্রভাষক মো. আব্দুল হক। গীতা পাঠ করেন ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক বিজন কুমার সরকার।

অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি এবং বিশেষ অতিথিবৃন্দ শিক্ষার্থী ও সাধারণ জনগনের মাঝে মাস্ক এবং লাল সবুজের মিশ্রণে টি-শার্ট বিতরণ করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here