চাঁদপুর শহরে বেপরোয়া অটোবাইকের কারণে ট্রাকচাপায় নিখিল চন্দ্র দাস (৬৫) নামে এক অটোযাত্রী ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন। ২৮ ফেব্রুয়ারি রোববার বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে চাঁদপুর শহরের কাজী নজরুল ইসলাম সড়কস্থ আল-আমিন একাডেমি স্কুল এন্ড কলেজের সামনে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।

নিহত নিখিল চন্দ্র দাস চাঁদপুর সদর উপজেলা কুমার ডুগী গ্রামের দেবন্দ্র চন্দ্র দাসের ছেলে এবং চাঁদপুর সরকারি হাসপাতালের গাইনী বিভাগের আয়া সন্ধ্যা রানী দাসের স্বামী। ঘটনার পরপরই চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রশিদ, পুলিশ পরিদর্শক মোঃ মনির আহম্মদ ও ৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সোহেল রানা সহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে ছুটে যান। এসময় অটোবাইক চালক শরীফ ও ট্রাক চালক মোঃ শাহির রাজাকে আটক করে থানায় নিয়ে যান। নিহতের স্ত্রী সন্ধ্যা রাণী জানান, তিনি হাসপাতালে চাকরি করার সুবাদে তারা দীর্ঘদিন ধরে চাঁদপুর শহরের কাজী নজরুল ইসলাম সড়কস্থ সাবেক (স্ট্যান্ড রোড) আলামিন একাডেমীর সামনে ভাড়া থাকতেন। রোববার বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে তারা স্বামী-স্ত্রী দুজন একটি অটো বাইকে করে গ্রামের বাড়ি কুমার ডুগীর উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। এসময় অটোবাইকটি গলির ভিতর থেকে বের হতে গিয়ে ট্রাকের সামনে পড়ে। এসময় ট্রাকচাপায় নিখিল চন্দ্র দাস রক্তাক্ত জখম হয়ে গুরুতর আহত হয়ে পড়েন। স্থানীয়রা তাকে তাৎক্ষণিক উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্মরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, একটি মালবাহী ট্রাক কাজী নজরুল ইসলাম সড়ক দিয়ে যাওয়ার পথে আল আমিন একাডেমির সামনে হঠাৎ করে গলির ভিতর থেকে একটি বেপরোয়া গতিতে অটোবাইক ট্রাকটির সামনের অংশে চাঁপা পড়ে। কয়েক মিনিটের মধ্যে ঘটনাস্থলেই ওই ব্যক্তি নিহত হন। চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডাক্তার নুরে আলম মজুমদার জানান, দুর্ঘটনায় নিহত ব্যক্তির মাথায় প্রচুর আঘাত পেয়ে প্রচণ্ড রক্তক্ষরণ হয়েছে। এখানে আনার পর আমরা তাকে মৃত দেখতে পাই। চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রশিদ জানান, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে এসেছি এবং সেখান থেকে ট্রাক চালক শাহির রাজা আটক করেছি। এবং অটোচালক শরীফকে আমাদের পুলিশ হেফাজতে নিয়েছে। একই সাথে ট্রাক ও অটোবাইক টি পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। তিনি আরও জানান, আমরা নিহতের লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে আইনগত ব্যবস্থা নেব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here