কিশোর সজিব সর্দারের বয়স মাত্র ১৫। যে বয়সে বই-খাতা-কলমের সাথে সম্পর্ক থাকার কথা, সে বয়সে অটোরিকশায় হাত রেখে জীবিকা নির্বাহ করে সে। চাঁদপুর শহরের পুরাণবাজার মধ্যশ্রীরামদী এলাকার দিনমজুর দেলোয়ার সরদারের এই কিশোর ছেলেটির সততায় চাঁদপুর বিকাশ এজেন্ট মালিক ফিরে পেয়েছে নিজেদের ভুলে অটোরিকশায় ফেলে যাওয়া ৬১ লাখ টাকা। আর এ ঘটনা ২১ জুন রোববার চাঁদপুরে টক অব দ্যা টাউনেনে পরিণত হয়েছে।

সজীব জানায়, রোববার সকাল ১১ টার সময় পালবাজার ব্রিজের চত্বর থেকে খালি গাড়ি নিয়ে পৌরসভার সামনে দিয়ে যাবার সময় তিন যাত্রি ইউসিবিএল ব্যাংক থেকে টাকা নিয়ে তার গাড়িতে উঠে। তারা শহরের জেএম সেনগুপ্ত রোড জোড়পুকুর পাড় যায়। সেখানে গিয়ে যাত্রী তিনজন নেমে ভাড়া দিয়ে নেমে যায়। মনের ভুলে ওই তিনযাত্রী লালবাগে থাকা টাকার ব্যক্তি অটো বাইকের ছিটে ফেলে রেখে যায়। ব্যাগসহ গাড়িটি নিয়ে সজীব প্রায় আধা ঘন্টা সেখানে দাঁড়িয়ে ছিল কেউ না আসায় সে তার গাড়ি নিয়ে চলে যায় পরবর্তীতে ঘটনাটি সজীব টাকার ব্যাগটি ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য তার বোনজামাইর সাথে আলাপ করে ।

বোনজামাই বিষয়টি এলাকার প্রতিবেশী বাদলকে চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের অফিস সহকারী বাদল বেপারিকে জানায়। বাদল ঘটনাটি সাথে সাথে চাঁদপুর মডেল থানা অফিসার ইনর্চাজ নাসিম উদ্দিনকে জানালে থানা ও পুরাণবাজার ফাঁড়ি পুলিশ সজীবের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী তার গ্যারেজ থেকে সেই টাকা উদ্ধার করে।

টাকাগুলো যে অবস্থায় গাড়ির সিটে রাখা ছিল, সেই অবস্থায় পুলিশ উদ্ধার করে।

অটোরিকশা চালক কিশোর সজিব ও বাদল বেপারীর এই দৃষ্টান্ত সকলের কাছেই প্রশংশিত হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here