সংযোগ সড়কের অভাবে মতলব উত্তরে জহিরাবাদ ইউনিয়নের ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের পাঁচ গ্রামের বাসিন্দা ও শিক্ষার্থীরা প্রতিদিন ঝুঁকি নিয়ে নড়বড়ে বাঁশের সাঁকো দিয়ে খাল পার হচ্ছে।

গ্রামবাসীর অভিযোগ, সেতু নির্মাণের পর গ্রামবাসী অনেক আনন্দিত হয়েছিলেন কিন্তু সেতুটির সংযোগ সড়ক না হওয়ায় গ্রামবাসীর সেই আনন্দ বিষাদে পরিণত হয়েছে।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতরের অর্থায়নে জহিরাবাদ ইউনিয়নের চরউমেদ খালের ওপর প্রায় ৩০ লাখ টাকা ব্যয়ে সেতুটি নির্মাণ করা হয়েছে।

সরেজমিন দেখা গেছে, জহিরাবাদ ইউনিয়নের চরউমেদ গ্রামের সংযোগস্থলে খালের ওপর নির্মাণ করা হয়েছে সেতুটি। ২ বছর আগেই সেতুটির নির্মাণ কাজ শেষ হয়ছে। সেতু পার হতে এক পাশে সংযোগ সড়ক নির্মাণ না করায় সেতুটি পানিবেষ্টিত হয়ে পড়ে আছে। ফলে ওই ইউনিয়নের ৫ গ্রামের ২২ হাজার বাসিন্দা খালের ওপর নির্মিত বাঁশের সাঁকো দিয়েই ঝুঁকি নিয়ে পার হচ্ছেন।

গ্রামের বাসিন্দা নাহিম মোল্লা বলেন, সেতু হয়েছে তবে সেতু পার হওয়ার কোনো রাস্তা নেই। কবে মাটি ফেলে রাস্তা করবে কে জানে? রাস্তা না হলে এই সেতু মানুষের কোনো উপকারেই লাগবে না।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. অঙ্গরাজ বলেন, বিষয়টি আমার আগে জানা ছিল না। অচিরেই সংযোগ সড়ক নির্মাণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here