চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে গরুবাহী ট্রাকের ধাক্কায় দুই মোটর সাইকেলের একই বাড়ির ২ জন নিহত ও ৩ জন আহত হয়েছে।

২৬ জুলাই রোববার রাত ১১ টার দিকে চাঁদপুর-ফরিদগঞ্জ বেইলি ব্রীজের পাশে তফাদার বাড়ির সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হচ্ছেন- মো. জিসান ও রাসেল মিয়া।
তাদের বাড়ি উপজেলার গোবিন্দুপুর দক্ষিণ ইউনিয়নের গোয়ালভাওর এলাকায়। সম্পর্কে চাচাতো-জ্যাঠাতো ভাই।
তারা অ্যাপাচি মোটরসাইকেলে করে ফরিদগঞ্জ শহর থেকে বাড়ির দিকে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনার শিকার হন।
আহতরা একই গ্রামের পাশের বাড়ির সমবয়সী রাকিব পাটওয়ারী (২০), মামুন বেপারী ও তারেক বেপারী।
এ তিনজন পালসার কোম্পানির অপর মোটর সাইকেলের আরোহী ছিলেন।নিহত মো. জিসানের বাবা সাবেক ইউপি সদস্য বাবুল মিয়া এবং রাসেল মিয়ার বাবার নাম আব্দুল মান্নান।

দুর্ঘটনার পরপরই পুলিশ চালকসহ ঘাতক ট্রাকটি লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুর উপজেলার দালালবাজার এলাকা থেকে আটক করেছে।
ফরিদগঞ্জ থানার ওসি আবদুর রকিব জানান, চাঁদপুরের হরিণাঘাট হয়ে ফরিদগঞ্জ দিয়ে চট্টগ্রাম যাচ্ছিল গরুবাহী ট্রাক (ঢাকা মেট্রো-ট-১৮-৭৪৫১)। এটি ঘটনাস্থলে পৌঁছালে বিপরীত দিকের দ্রুতগামী মোটরসাইকেলকে সাজোরে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে মোটরসাইকেলের আরোহী মো. জিসান (২১) এবং অপর আরোহী মো. রাসেল (২২) নিহত হন।
ওসি আরো জানান, ঘটনার পর পরই সংবাদ পেয়ে উপ-পরিদর্শক নাসির উদ্দিনের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ঘাতক ট্রাক জব্দ ও চালককে আটক করে।
এদিকে, নিহত দুজনের লাশ ফরিদগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আছে। মর্মান্তিক মৃত্যুর সংবাদে স্বজনরা হাসপাতালে ছুটে যান। এসময় তাদের আহাজারিতে হাসপাতালের পরিবেশ ভারি হয়ে উঠে।
অন্যদিকে, ঘাতক ট্রাকের চালকের নাম মো. রুস্তম (৪২) বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার দাওকাঠি গ্রামে তার বাড়ি। পুলিশের উপপরিদর্শক মো. নাসির উদ্দিনের কাছে চালক স্বীকার করেছেন, তিনি একাই ট্রাকে ছিলেন। সঙ্গে কোনো হেলপার ছিলো না।
হে আল্লাহ নিহতদেরকে জান্নাতবাসী হিসাবে কবুল করুন আমিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here