স্টাফ রিপোর্টার ঃ মতলব দক্ষিণ উপজেলার নায়েরগাঁও উত্তর ইউনিয়নের কাচিয়ারা কাঞ্চনমালা দিঘী। এখন শুধু নামেই স্মৃতি। দিঘীর পূর্ব, পশ্চিম ও দক্ষিণে বাড়ি-ঘর আর উত্তর দিকে স্কুল এন্ড কলেজ, প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মাদ্রাসা। এ উপজেলায় অবস্থিত দিঘীটি একটি ঐতিহ্যবাহী দিঘী। বৌদ্ধ ধর্মালম্বী কাঞ্চন রাজা কয়েক’শ বছর আগে এ দিঘীটি খনন করেছিলেন। মতলবের ইতিহাস ও ঐতিহ্যের মধ্যে দিঘীটির নাম লেখা আছে। এ দিঘীটির ইতিহাস সম্পর্কে আমরা অনেকেই অবগত নই। কিন্তু মতলবের ইতিহাসের পাতায় এ দিঘীটির নাম স্বর্ণাক্ষরে লেখা আছে। দৈর্ঘ্য-প্রস্থ অনেক। এখানে একটি পর্যটন কেন্দ্র স্থাপন করা হলে দেশ-বিদেশের অনেক পর্যটক দিঘীটি দেখতে আসতো বলে অনেকেই ধারণা করেছেন। কিন্তু আজ দিঘীটির চারদিকে ঘর-বাড়ি। দিঘীটি একটি পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে স্থান পেলে আগামী প্রজন্ম অনেক কিছু জানতে পারতো। কাচিয়ারা স্কুল এন্ড কলেজের প্রধান অধ্যক্ষ জানান, কাচিয়ারা একটি রাজ বাড়ি ছিল। সেখানে কাঞ্চন রাজা নামে এক মহান ব্যক্তি বসবাস করতো। কাঞ্চন রাজা এ দিঘীটি খনন করে নামকরণ করেছেন কাঞ্চনমালা দিঘী। যদিও কাঞ্চন রাজার উত্তরসূরী বলতে এখন কেউ নেই। বর্তমানে দিঘীটির নিদর্শন স্বরূপ হিসেবে রয়েছে দুটি ঘাটলা। এই দিঘিীটিতে অনেক স্মৃতি ও ঐতিহ্য রয়েছে বলে অনেকেরে ধারণা। এলাকাবাসীর দাবী সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্তৃপক্ষ এই দিঘীটিকে স্মরণীয় করে রাখতে এখানে একটি পর্যটন কেন্দ্র স্থাপন করা হোক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here