মতলবে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন ॥ প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে থানায় অভিযোগ!

সফিকুল ইসলাম রিংকু :-বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে সৃষ্ট আগুনে বসতঘর পুড়ে যাওয়াকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে মিথ্যা তথ্য দিয়ে থানায় অভিযোগ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের রির্পোট অনুসারে বৈদ্যুতিক কারণে আগুন লাগার বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে কেউ আগুন লাগিয়েছে বলে দাবি করছেন ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের সদস্যরা।

সরেজমিনে জানা যায়, চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলার নারায়নপুর ইউনিয়নের ধারিন্দা রসুলপুর গ্রামের কৃষক আম্বর আলীর বসতঘর গত ১২ মে ভোরে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে সৃষ্ট আগুনে পুড়ে যায়। অগ্নিকান্ডের ঘটনায় আম্বর আলী এলাকার কিরন প্রধানসহ কয়েক জনের বিরুদ্ধে আগুন লাগিয়ে ঘর পুড়িয়ে দিয়েছে মর্মে অভিযোগ এনে মতলব দক্ষিণ থানায় লিখিত অভিযোগ দেন। অগ্নিকান্ডের ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পরিদর্শন করে টিন ও নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করেন এবং সহকারী পুলিশ সুপার (মতলব সার্কেল) আহসান হাবীব অভিযোগের বিষয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, কিরন প্রধানের বড় ছেলে নাদিম প্রধানের কাছ থেকে চাঁদা দাবি এবং মেয়ের নামে কুৎসা রটিয়ে বিয়ে ভেঙ্গে যাওয়াকে কেন্দ্র করে আম্বর আলী ও তার ছেলে সুফিয়ানসহ বেশ কয়েক জনের নামে মতলব দক্ষিণ থানায় লিখিত অভিযোগ ও মামলা হয়। এছাড়াও আম্বর আলীর ছেলে সুফিয়ান তার দলবল নিয়ে কিরন সরকারের বড়ভাই ও ভাতিজাকে মারধর করে। এতে তারা একই বাড়ির বাসিন্দা হলেও একে অপরের প্রতিপক্ষ হয়ে যায়।

এই নিয়ে কিরন প্রধান বলেন, আমি আমার পরিবার নিয়ে ঢাকায় থাকতাম, করোনার কারণে এখন বাড়িতে রয়েছি। বড় ছেলে এলাকায় ফার্ম দিয়ে ব্যবসার করছে বলেই সে বাড়িতে থাকে। তাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি ও মারধরের অভিযোগে মামলা হয়েছে বলেই আমাকে ও আমার ছেলেকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে আসছে। সর্বশেষ বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে ঘরে আগুন লাগার বিষয়টি তারা কৌশলে আমাদের দোষ দিতে চাইছে। ঘরে আগুন লাগার বিষয়ে মতলব দক্ষিণ উপজেলা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান বলেন, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে, এতে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় দেড় লক্ষ টাকা হয়েছে বলে রিপোর্ট দিয়েছি।

মতলব দক্ষিণ থানার ওসি স্বপন কুমার আইচ বলেন, কিরন প্রধানের মামলা হয়েছে এবং অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় আম্বর আলীর লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে রাতেই মামলা রেকর্ড করা হয়েছে।

সহকারী পুলিশ সুপার (মতলব সার্কেল) আহসান হাবীব বলেন, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। মামলার বিষয়ে তদন্ত চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here