চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বসানো করোনা স্যাম্পল কালেকশন বুথ এর মাধ্যমে কোভিট-১৯ এর নমুনা সংগ্রহ কার্যক্রম শরু হয়েছে। নমুনা সংগ্রহের বুথে থাকা স্বাস্থ্যকর্মীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এ ব্যবস্থা।

১৮ জুন শুক্রবার সকাল ৮টার সময় উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স-এর সামনে বসানো করোনা স্যাম্পল কালেকশন বুথ থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একমাত্র সেম্পল কালেকশনকারী মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (এমটিইপিআই) ভাষান চন্দ্র কীর্ত্তনীয়া উপজেলার করোনার উপসর্গ দেখা দেওয়া সন্দেহ করোনা রোগীদের নমুনা সংগ্রহ করেন। এদিন তিনি উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আগত ১৮ জন করোনার উপসর্গ দেখা দেওয়া (সন্দেহভাজন করোনা রোগীদের) নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ নুসরাত জাহান মিথেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে লড়াই’ নামে একটি সংগঠন কর্তৃক হস্তান্তর করা করোনা স্যাম্পল কালেকশন বুথ এর উদ্বোধন করেন।

এসময় উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স-এর আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) করোনা জয়ী ডাঃ মেহেদী হাসান, মেডিকেল অফিসার (এমওডিসি) ডাঃ আল আমিন , উপজেলার একমাত্র করোনার সেম্পল কালেকশনকারী মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (এমটিইপিআই ) ভাষান চন্দ্র কীর্ত্তনীয়া, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে লড়াই’ নামে একটি সংগনের প্রধান সমন্বয়ক স্বাস্থ্য সহকারী হাসান আল-মামুন, সদস্য বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ্ব শেখ মোঃ ফরিদ বেপারী, অফিস ষ্টাফ আবুল বাশার প্রমূখ।

উল্লেখ্য করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বৃদ্ধি পাওয়ায় নমুনা সংগ্রহের বুথে থাকা স্বাস্থ্যকর্মীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে
সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘ কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে লড়াই’ এর পক্ষ থেকে চাঁদপুর জেলার প্রত্যেকটি উপজেলায় এ স্যাম্পল কালেকশন বুথ স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এরই পরিপেক্ষিতে মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে-এ করোনা স্যাম্পল কালেকশন বুথ বসানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ নুসরাত জাহান মিথেনের হাতে হস্তান্তর করেন সংগঠনের সদস্য বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ্ব শেখ মোঃ ফরিদ। এছাড়া দেশের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে এ বুথ সংগঠনের পক্ষ থেকে নমুনা সংগ্রহের বুথ বসানো হবে।

এ বুথ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ নুসরাত জাহান মিথেন এই সময়োপযোগী মহতী উদ্যোগকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানিয়ে সমাজের ব্যবসায়ী ও বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান জানান।

এদিকে এ স্বেচ্ছাসেবী এ সংগঠনের উপদেষ্টা মেহের আফরোজ চুমকি এমপিকে মুঠোফুনে মেহের আফরোজ চুমকি বলেন শেখ হাসিানর সরকার কোভিড-১৯ এ জনগনের জন্য সর্ব্বোচ্চ সেবা দিতে বদ্ধ পরিকর । আমি আশা করি আপনারা যারা চিকৎসা সেবায় নিয়োজিত আছেন দেশের এ ক্লান্তিকালে মানুষের পাশে সেবার হাত সম্পসারিত করবেন । জাতি আপনাদের এ অবদান শ্রদ্ধার সাথে আজীবন মনে রাখবে। সকলে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে মেনে চলবেন।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশসহ বিভিন্ন পেশার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিরা জীবনবাজী রেখে তাদের পেশাগত দায়িত্ব পালন করছেন। এটি করতে গিয়ে অনেকেই করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। করোনা ভাইরাস অত্যন্ত ছোঁয়াচে রোগ। যারা কোভিড-১৯ পরীক্ষার নমুনা সংগ্রহ করছেন তাদের কেউ কেউ সংক্রমিত হচ্ছেন। নমুনা সংগ্রহের বুথে থাকা স্বাস্থ্যকর্মীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসাবে আমরা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে এ স্যাম্পল কালেকশন বুথ দেওয়ারে জন্য কাজ করে যাচ্ছি । আমাদের সংগঠনের যারা অনুদান দিয়ে পাশে এসে দাড়িয়েছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা ডা.নুশরাত জাহান মিথেন বলেন, নতুন করে করোনায়সংক্রমিত ব্যক্তিদের তাঁদের বাসায় আইসোলেশনে (বিচ্ছিন্ন) রাখা হয়েছে। তাঁদের বাড়ি লকডাউন (অবরুদ্ধ) করা হয়েছে। পরিবারের সদস্যদের ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টিনে (সঙ্গনিরোধ) থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

তিনি করোনার বিস্তার প্রতিকরোধে সাধারণ মানুষকে সচেতন হওয়ার ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য আহবান জানান।

উল্লেখ্য, মতলব উত্তর উপজেলায় এখন পর্যন্ত নতুন করোনা সনাক্ত হয়েছে ২৭ জন। আর করোনায় মারা গেছে ৫ জন। আর উপজেলায় এখন পর্যন্ত নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ২৫০ জনেন। এর মধ্যে ১৪ জন ছাড়া বাকী সবাইর রিপোর্ট ইতিমধ্যে এসেছে। ১৪ জনের নমুনার রিপোর্ট অপেক্ষমান। উপজেলায় রিপোর্টেংর অপেক্ষাং থাকা ১৪ জন ছাড়া ২০৪ জনের নমুনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here