চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ফরাজীকান্দি ইউনিয়নের আমিরাবাদ এলাকার কাতারিকান্দি গ্রামে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর উপসর্গ নিয়ে মোঃ জামান (১২) নামে এক বালকের মৃত্যুু হয়েছে। সে ঐ গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে।

১২ জুন শুক্রবার সকাল ৭টার দিকে গ্রামের নিজ বাড়িতেই মারা যান ওই বালক। মোঃ জামান বৃহস্পতিবার ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়িতে আসে। মোঃ জামান এর মৃত্যুর ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা.নুশরাত জাহান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া জামান ও তার বাবা-মা বৃহস্পতিবার তাদের গ্রামের বাড়ি মতলব উত্তর উপজেলার ফরাজীকান্দি তাদের গ্রামের বাড়ি আসে। তারা করোনার উপসর্গ নিয়েই কাউকে না জানিয়ে বাড়ি আসে। ঢাকা থেকে আসার এক দিন পরেই জামান নামে এ বালক করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যায়।

তারা ঢাকা কমলাপুর থাকেন। সেখানে তাদের পাশের একজন করোনায় মারা গেছে বলে জানা গেছে। গত এক সাপ্তাহ ধরে তার জ্বর, সর্দি, কাশিসহ করোনার উপসর্গ দেখা দেয়। তার মাও অসুস্থ বলেও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.নুশরাত জাহান মিথেন নায়েরগাঁও দিগন্তকে জানান, করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া জামান এর নমুনা সংগ্রহের জন্য টিম পাঠানো হয়েছে। নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকার রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পাঠানো হবে। নুমনার রির্পোাট আসার পর জানা যাবে সে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে কিনা। তবে তার করোনা উপসর্গ ছিল বলে জানতে পেরেছি।

তিনি আরো বলেন তাঁর পরিবারের সদস্যদের আজ থেকে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টিনে (সঙ্গনিরোধ) থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়। তাদের নমুনাও সংগ্রহ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here