মতলব উত্তরে খ্যাতনামা মুফাসসির কোরআন মাওলানা রফিকুল ইসলামকে অশ্রুভরা নয়নে শেষ বিদায় জানালেন কয়েক হাজার ছাত্র,অনুরাগী, ভক্ত ও মুসল্লীরা। শুক্রবার (২২ জানুয়ারী) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেল ৪:৪০ মিনিটে লাইফসাপোর্টে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্নানিল্লাহ……রাজেউন)।

 

২ দফা জানাযা শেষে শনিবার তার গ্রামের বাড়ি চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার লুধুয়া গ্রামে স্থানীয় “লুধুয়া মাদরাসা” প্রাঙ্গনে তৃতীয় দফা জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। হাজারো মুসল্লিদের উপস্থিতিতে জানাযা শেষে লুধুয়া গোরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। এসময় মাওলানা রফিকুল ইসলামের সহকর্মী , আত্মীয়-স্বজন সহ উপস্থিত সাংগঠনিক নেতৃবৃন্দের স্মৃতি চারণে চোঁখ ভারি হয়ে অশ্রুসিক্ত হয়ে পড়েন সকলে।

 

মাওলানার মৃত্যুর পর শুক্রবার রাতে তার কর্মস্থল রাজধানীর শাহজানপুর রেলওয়ে হাফিজিয়া সুন্নিয়া আলিম মাদরাসা মাঠে প্রথম জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর চাঁপুরের ইসলামপুর গাছতলা দরবার শরীফ প্রাঙ্গনে শনিবার ভোর ৬ টায় দ্বিতীয় জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। চাঁদপুরের মতলবের এই কৃতি সন্তান উপজেলার আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়া’ত এর সভাপতির দায়িত্ব পালন করছিলেন।

 

এছাড়া তিনি রাজধানীর শাহজানপুর রেলওয়ে হাফিজিয়া সুন্নিয়া আলিম মাদরাসার অধ্যক্ষ ও ঢাকা মহানগর প্রিন্সিপাল সোসাইটির সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্বরত ছিলেন। ক্ষণ জন্মা এই মুফাসসির কুরআন তার নিজ গ্রামের লুধুয়া মাদরাসা মাঠে দীর্ঘ দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে ঈদ-উল ফিতরের নামাজের নিয়মিত ইমাম হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আপমর জনগণের হৃদয়ে যায়গা করে নিয়েছেন। এছাড়াও তিনি স্বদালাপী, মিষ্টভাষী ও নিরংহকারী হিসেবে সর্বস্থরের মানুষের হৃদয় জয় করেছেন।

 

মাওলানা রফিকুল ইসলাম এতিম ও অসহায়দের বিনামূল্যে তার নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও অন্যান্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লেখা পড়ার সুযোগ করার মাধ্যমে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিতেন।তিনি মৃত্যুকালে তার স্ত্রী,দুই পুত্র সন্তান ও এক কণ্যা সন্তান সহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন রেখে গেছেন।

 

শেষ জানাযায় তার স্মৃতিচারণ করেন , চাঁদপুরের ইসলামপুর গাছতলা দরবার শরীফের পীর ও কমলাপুর রেলওয়ে জামে মসজিদের খতিব আল্লামা আরিফুর রহমান তাহেরী, শাহজানপুর রেলওয়ে হাফিজিয়া সুন্নিয়া আলিম মাদরাসার ভাইস প্রিন্সিপাল মুফতি ইব্রাহিম খলিল আড়াইহাজারী,আরবি প্রভাষক মাওলানা মেছবাহ উদ্দিন আশরাফী, সিনিয়র মৌলবী আ.ন.ম তোফায়েল হোসেন,সহকারী শিক্ষক হাবিবুর রহমান ভুঁইয়া,ফরাজীকান্দি দরবার শরীফের পীর আল্লামা শায়েখ মাসউদ আহমেদ বোরহানী, মতলব উত্তর আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়া’তের সাধারণ সম্পাদক মুফতি আহম্মদ উল্লাহ, লুধুয়া আহমেদিয়া দাখিল মাদরাসার সুপার মাওলানা জসিম উদ্দিন প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here