রায়হান ইমরান স্টাফ রিপোর্টার ঃ প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতায় একদিনেই পাল্টে গেছে মতলব দক্ষিণ উপজেলার করোনা সংক্রমণের মতলব বাজারসহ কয়েকটি এলাকার চিত্র। বিশেষ করে পুলিশি এ্যাকশনে সেখানকার রাস্তার দু’পাশের ফুটপাত থেকে হকার ও ভ্যানগাড়ি সরিয়ে দেওয়ায় পরিস্থিতির ব্যাপক উন্নতি হয়েছে। শুক্রবার সকালে পুলিশের বিশেষ অভিযানের পর ওই এলাকার চিরচেনা যানজট ও মানবজট হঠাৎ করেই উধাও হয়ে যায়। তবে এই ধারা অব্যাহত রেখে আরো জোরালোভাবে লকডাউন পুরোপুরি নিশ্চিত করকার দাবি তুলেছেন সচেতন মহল। লকডাউন কার্যকরে সর্বোচ্চ সতর্কাবস্থানে রয়েছে উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন। এছাড়া সেনাবাহিনীর টহল টিমের সাথে রয়েছে মোবাইল কোর্ট। প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সম্মিলিত প্রচেষ্টায় শুক্রবার ও আজ শনিবার মতলব শহরের পরিস্থিতির অনেকটাই উন্নতি ঘটেছে। বিশেষ করে মতলব বাজার, নারায়নপুর বাজার, নায়েরগাঁও বাজার, মুন্সিরহাট বাজার এলাকার তীব্র ভিড় অনেকটাই কমে এসেছে। সরিয়ে দেওয়া হয়েছে ভিড়ের প্রধান উপলক্ষে ফুটপাতের দোকানগুলো। বেশ কয়েকটি দোকান সীলগালা করা হয়েছে। ১৬ মে শনিবার থেকেই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও থানা পুলিশ প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি, আনসার এর সদস্যরা মাঠে নেমেছে এবং কঠোরভাবে মনিটরিং করছেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহমিদা হক জানান, করোনা প্রতিরোধে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে এবং সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে হবে। সরকারি আইন অমান্য করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) নুশরাত শারমীন বলেন, আমাদের মোবাইল কোর্ট অব্যাহত আছে। আইন অমান্য করলেই ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। মতলব দক্ষিণ থানার অফিসার ইনচার্জ স্বপন কুমার আইচ বলেন, বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা জীবনের ঝুকি নিয়ে কাজ করছে। উপজেলার বিভিন্ন স্থানে চেকপোষ্ট বসানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here