চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণে চাঁদপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর আওতায় বিদ্যুৎ গ্রাহকদের অতিরিক্ত বিদ্যুৎ বিল নিয়ে চরম হয়রানীর শিকার হতে হচ্ছে। চলছে নৈরাজ্য। যেন দেখার মতো কেউ নেই। মতলব পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের মিটার রিডিং কর্মকর্তার দায়িত্ব অবহেলার কারনে গ্রাহকদের গাড়ে দিচ্ছে অতিরিক্ত বিদ্যুৎ বিল। ফলে মতলবের শত শত বিদ্যুৎ গ্রাহক এ হয়রানীর শিকার হচ্ছেন। এদিকে, অভিযোগ করেছেন কলাদী ঘোষপাড়ার মোঃ দেলোয়ার হোসেনের বাসার ভাড়াটিয়া এমএ আজিজ বাবুল। হিসাব নং ০৫-২৮৪-১০১৪, বিল নং ১৫৬-২০০৮-৬০৭৪১। এর অনুকুলে অতিরিক্ত বিদ্যুৎ বিল প্রস্তুত করে গ্রাহকের হাতে পৌঁছে দিয়েছে। গ্রাহক আরো জানায়, মার্চ মাসের ৯১৩টাকা, এপ্রিলের ১০৯৪টাকা, মে মাসের ৭৩৩৭টাকা, জুন মাসের ১৮১১টাকা, জুলাই মাসের ১৩৩৯টাকা, আগষ্টের ১৬৭৯টাকা প্রস্তুত করে আমাকে দিয়েছে। আমি সরাসরি বিদ্যুৎ অফিসে গিয়ে মে মাসের বিল সংক্রান্ত বিষয়ে অভিযোগ করলে অফিস থেকে লোক এসে মিটার চেক করে দেখেন সবকিছু বন্ধ থাকলেও মিটারটি অটো ঘুরতে থাকে। পরবর্তীতে মিটারটি পরিবর্তন করে নতুন মিটার সংযোগ দেওয়া হয়। পূর্বের মাসের বিল জুলাই -আগষ্টের সাথে যোগ করে দেয়। কিন্তু গ্রাহকের অভিযোগের কোন সুরাহা হয়নি। এরকম দুর্ভোগ বিদ্যুৎ অফিসের শতশত গ্রাহকদের প্রতিনিয়ত হচ্ছে। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ সরেজমিনে তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করবেন বলে বিদ্যুৎ গ্রাহকরা জোড় দাবী জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here