বৃহত্তর কুমিল্লা জেলায় মৎস্য উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় বাস্তবায়নাধীন বিভিন্ন কর্মসুচী পরিদর্শণে গত ১২ সেপ্টেম্বর মৎস্য অধিদপ্তরের মান্যবর মহাপরিচালক কাজী শামস আফরোজ মতলব দক্ষিণ উপজেলায় পরিদর্শনে আসেন। মৎস্য অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম বিভাগের উপ-পরিচালক এসএম মহিবুল্লাহকে স্বাগত জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহমিদা হক। মহাপরিচালক কাজী শামস আফরোজ প্রথমে উত্তর বাইশপুর মাছ চাষের জলাশয়ে মাছের পোনা অবমুক্ত করেন এবং সুফল ভোগীদের সাথে মতবিনিময় করেন। এর পর প্রকল্প সহায়তায় বাস্তবায়িত ধনাগোদা নদীতে স্থাপিত খাঁচায় মাছ চাষ কার্যক্রম পরিদর্শন ও সুফলভোগীদের সাথে কথা বলেন। পরে তিনি সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয়ে আয়োজিত নিবন্ধিত জেলেদের প্রশিক্ষণ কর্মসূচি ও বিকল্প কর্মসংস্থানের উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠানে জেলেদের মাঝে বক্তব্য রাখেন এবং ২০ জন নিবন্ধিত ও প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত মৎস্যজীবীর মাঝে সেলাইমেশিন সহ অন্যান্য উপকরণ বিতরণের উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহমিদা হক। এ সময় উপস্থিত ছিলেন রির্জাভ পরিচালক সিরাজুর রহমান, উপ-পরিচালক মৎস্য চাষ আজিজুল হক, মৎস্য অধিদপ্তরের উপ-প্রধান মাসুদা খানম। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন কচুয়ার সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মাসুদুল হাছান। এসময় প্রকল্প পরিচালক আ: সাত্তার, সহকারী পরিচালক শামিম উদ্দিন, মতলব উত্তর উপজেলার সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মনোয়ারা বেগম, হাইমচর উপজেলার সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মিজানুর রহমান উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানটির সার্বিক দায়িত্বে ছিলেন সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা ফারহানা আক্তার রুমা। জানা যায়, নদী পথে খাঁচার কাছে যাওয়ার প্রাক্কালে বেশ কিছু জাগ/ কাঠা মহাপরিচালক মহোদয়ের দৃষ্টিগোচর হয় এবং তিনি সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তাকে দ্রæত এ সকল জাগ উঠানোর জন্য নির্দেশনা প্রদান করেন। সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মহাপরিচালক মহোদয়কে এই মর্মে অবগত করেন যে, বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মহোদয়গনের নেতৃত্বে চলতি অর্থবছরে ৯৫ টি ভেসালসহ বিপুল পরিমান কারেন্ট জাল জব্দ ও বিনষ্ট করা হয়েছে। এছাড়াও গত মার্চ মাসে দুই দফায় জাগ, ভেসালসহ অবৈধ জাল/ অবকাঠামো সরিয়ে নেওয়ার জন্য মাইকিং ও নোটিশ প্রদান করা হয়েছিলো কিন্তু জাগ প্রদানকারীরা তাতে কর্নপাত করেনাই। তিনি মহাপরিচালক মহোদয়ের নিকট এ সকল অভিযান পরিচালনার জন্য প্রয়োজনীয় বাজেট প্রদানের অনুরোধ জানান। মহাপরিচালক মহোদয় পরে জেলেদের উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠানে জাগ সহ মৎস্য সম্পদ বিনষ্টকারী সকল স্থাপনা উচ্ছেদে উপজেলা নির্বাহী অফিসার, মতলব দক্ষিণকে ধন্যবাদ জানান এবং সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তাকে সার্বিক সহযোগিতা প্রদানের জন্য অনুরোধ জানান। মাঠ পরির্দশণে মতলব দক্ষিণ উপজেলাকে মনোনীত করার জন্য মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকসহ উপস্থিত সকলের প্রতি সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার ফারহানা আক্তার রুমা আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here