সফিকুল ইসলাম রিংকু-

রিফাত পাটোয়ারী-

মতলব দক্ষিণ উপজেলায় পরিবেশ অধিদপ্তর জেলা কার্যালয়ের উদ্যোগে জলাশয় ভরাট ও পরিবেশ দূষণের দায়ে মোবাইল কোর্টে ২১ হাজার টাকা জ’রিমানা করা হয়েছে।

১৮ আগষ্ট মতলব দক্ষিণ উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট নূসরাত শারমিনের নেতৃত্বে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়।

মোবাইল কোর্টে বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন ১৯৯৫ মতে উপজেলার নারায়ণপুর ব্রীজ সংলগ্ন খিদিরপুরস্থ পাঁচঘড়িয়া গ্রামে বালু দ্বারা খাল ভরাট করার অভিযোগে মেসার্স মঞ্জিল ট্রেডার্সের স্বত্ত্বাধিকারী মোঃ আবু বকর কে ২০ হাজার টাকা ও একই গ্রামের পরিবেশ দূষণে গরু লালন পালন করার দায়ে স্বপন মিয়াকে ১ হাজার টাকা জ’রিমানা করা হয়।

এছাড়া একই স্থানে খালের অংশ দখল করে টয়লেট নির্মাণ করার কারণে শেখ ফজলুল করিম সেলিম কে আগামী ১০ দিনের মধ্যে খালের অংশে নির্মিত টয়লেট অপসারনের জন্য নির্দেশ প্রদান করা হয়। নির্দেশ অমান্য ব্যর্থ হলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানানো হয়। পরিবেশ অধিদপ্তর, জেলা কার্যালয়ের ১২ই আগষ্ট ২০২০ তারিখে প্রাপ্ত অভিযোগের প্রেক্ষিতে খিদিরপুরস্থ পাঁচঘড়িয়া গ্রামে এই মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়।

এ সময় পরিবেশ অধিদপ্তর চাঁদপুর জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক এএইচএম রাশেদ, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কুমিল্লা সেনানিবাসের সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার মোঃ দেলোয়ার, জেলা কার্যালয়ের নমুনা সংগ্রহণকারী মোবারক হোসেন, মোবাইল কোর্টে প্রসিকিউসন প্রদান করেন পরিবেশ অধিদপ্তর চাঁদপুর জেলা কার্যালয়ের পরিদর্শক উত্তম কুমার। মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কুমিল্লা সেনানিবাসে একটি চৌকস টিম সহায়তা প্রদান করে। পরিবেশ অধিদপ্তর চাঁদপুর জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক এএইচএম রাশেদ জানান, জলাশয়ের ভরাট ও পরিবেশ দূষণের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্ট অভিযান অব্যাহত থাকবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here