দুই বছর যাবৎ অবৈধভাবে ঘাটে জনপ্রতি পাঁচটাকা আসা বা যাওয়ার জন্য নিতেন কথিত ইজারাদাররা। অথচ দুই বছর যাবৎ কোন ইজারা আনা হয়নি মতলব খেয়া ঘাটের। অবৈধভাবে যাত্রীদের কাছ থেকে টাকা আদায়ের বিষয়টি মতলব দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর ভুক্তভোগীদের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে আজ (২৫/১১/২০২০) বিকাল পাঁচঘটিকায় মতলব দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও মতলব দক্ষিণ থানা অফিসার ইনচার্জের নেতৃত্বে একটি ভ্রাম্যমান আদালত এসে ঘাটে হাজির হন। অতপর ঘাটে অবৈধভাবে টাকা উত্তোলনের বিষয়টি নিশ্চিত হন। ভ্রাম্যমান আদালত তাৎক্ষণিকভাবে দশ হাজার টাকা জরিমানা করেন এবং আগামীকাল বিকেল তিনটার মধ্যে জনপ্রতি মুল্য তালিকা টানানোর নির্দেশ দেন। যারা ঘাটে টাকা তুলতেন এবং এই ঘননার সাথে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নেয়ার প্রক্রিয়া চলছে। ধন্যবাদ মতলব দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে। আজ থেকে ঘাটটিকে মুক্ত করে দেয়ার জন্য। আজ থেকে ঘাটে অবৈধভাবে পাঁচটাকা নেয়া সাময়িকভাবে বন্ধ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here