বৈশ্বিক মহামারী কোন পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের বেতন মওকুফসহ বিভিন্ন দাবিতে চাঁদপুরে জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে ছাত্রদল। ২১ জুন রোববার বেলা ১১টায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল চাঁদপুর জেলা শাখার উদ্যোগে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে এই স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। জেলা প্রশাসকের পক্ষে স্মারকলিপি গ্রহণ করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামান।

চাঁদপুর জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ইমান এইচ গাজী ও সাধারণ সম্পাদক এই এম ইসমাইল পাটওয়ারী স্বাক্ষরিত স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারনে গোটা বিশ্বের পাশাপাশি বাংলাদেশের অর্থনীতি স্থবির হয়ে পড়েছে। এ অবস্থায় শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের পক্ষে সন্তানদের বেতন দেয়া খুবই কষ্টসাধ্য। তাই সকল সরকারি-বেসরকারি শিক্ষা- প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের শিক্ষা জীবন রক্ষার স্বার্থে ততাদের বেতন মওকুফের দাবি জানানো হয়।

স্মারকলিপিতে আরো উল্লেখ করা হয়,
কিন্টারগার্ডেন, সরকারি বেসরকারি স্কুল কলেজ পর্যায়ের টেলিভিশন অনলাইনে কিছুটা ক্লাস কার্যক্রম চালু থাকলেও সেটি সবার কাছে পৌঁছাচ্ছে না। যার অন্যতম কারণ স্কুলগুলোর এক-তৃতীয়াংশ শিক্ষার্থী অর্থনৈতিক অসচ্ছল পরিবার থেকে আসা, বেশির ভাগ শিক্ষার্থী বর্তমানে গ্রামের বাড়িতে অবস্থান করছে, তাদের অনেকেরই স্মার্ট ফোন ইন্টারনেট ক্রয় করার আর্থিক সামর্থ্য নেই, অনেকের এলাকায় নেটওয়ার্ক ও বিদ্যুতের সমস্যা রয়েছে। এছাড়াও অধিকাংশ শিক্ষার্থী টিউশনি করে শিক্ষার ব্যয় নির্বাহ করে সেটাও করোনা মহামারীর কারণে সম্ভব হচ্ছে না। তাই উপরোক্ত কারণে আপাতত ভার্চুয়াল ক্লাস ও পপরীক্ষা স্থগিত রাখার জোর দাবি জানান তারা।

এছাড়াও অসংখ্য বেসরকারি শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান রয়েছে, যারা সরকারি কোষাগার থেকে বেতন-ভাতা পায় না এবং তারা শিক্ষার্থীদের বেতনের উপর নির্ভরশীল। তাদের অর্থিক ক্ষতি সরকারি তহবিল থেকে পুষিয়ে দেয়া এবং শিক্ষার্থীদের কর্মহীন অভিভাবকদের জীবিকা রক্ষায় পারিবারিক ভাবে অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের অর্থ সহায়তা দয়ার দাবি জানান তারা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ইমান এইচ গাজী, সাধারণ সম্পাদক এই এম ইসমাইল পাটওয়ারী, সহ-সভাপতি অবু হানিফ কাকন, যুগ্ম সম্পাদক মনির হোসেন মুন্না, সোহেল রানা, জেলা ছাত্রদল নেতা সফিউদ্দিন বাবলু, বারেক ভুইয়া, ফজলুসহ ছাত্র দলের নেতৃবৃন্দ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here