ডেস্ক  রিপোর্ট ● কুমিল্লার লালমাইয়ে ১৪ বছরের কিশোরীকে ৬৫ বছরের বৃদ্ধের বিয়ে করার ঘটনাকে কেন্দ্র করে মেয়ের মায়ের দা’য়ের করা অ’পহরণ মা’মলায় বৃদ্ধ রিক্সাচালক শামসুল হক সামুকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছেন আদালত।

আর কিশোরীকে তার মায়ের হেফাজতে দেওয়া হয়েছে। অপরদিকে, এই অসম প্রেমের বিয়ে পড়ানো কাজীকে আ’টক করেছে লালমাই থা’না পু’লিশ। কাজী মজিবুর রহমান সরকার বিয়ের কাবিন নামায় ভুয়া সিল ঠিকানা ব্যবহার করেছে বলে জানিয়েছেন লালমাই থা’নার ভারপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা মো. আইয়ুব।

জানা যায়, জে’লার লালমাই উপজে’লার পেরুল দক্ষিণ ইউনিয়নের পশ্চিম পেরুল গ্রামের এক ব্যক্তি ঢাকায় চাকরি করায় গ্রামে বসবাস করা তার পরিবারের দেখাশুনা করতেন পেরুল দীঘিরপাড়ার রিক্সা চালক সামছুল হক সামু (৬৫)।

ঢাকায় বসবাস করা ব্যক্তির ২য় কন্যা (১৩) স্থানীয় পেরুল উচ্চ বিদ্যালয়ে ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী। সামছুল হক সামু নিজের রিক্সায় তাকে নিয়মিত স্কুলে আনা নেওয়া করতেন। কাজের কারণে মাঝেমধ্যে তিনি ওই বাড়িতে রাত্রিযাপনও করেছেন।

কিন্তু গত ১০ মে রবিবার সামছুল হক সামু সবাইকে হতবাক করে তার বয়স থেকে ৫২ বছরের ছোট ঐ ছাত্রীকে ভাগিয়ে নিয়ে কাজী অফিসে গিয়ে বিয়ে করেন। এই ঘটনা প্রথম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ পেলে কুমিল্লাসহ সারা দেশে তোলপাড় শুরু হয়।

মুহূর্তেই খবরটি ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়। পর দিন উপজে’লা ইউএনও এবং থা’নার ওসি স্থানীয় চেয়ারম্যানের মাধ্যমে তার কার্যালয়ে এই অসম দম্পত্তিকে ডেকে মি’মাংসা করার চে’ষ্টা করে।

কিন্তু বৃদ্ধ রিক্সাচালক সামু ও কিশোরী দুই জনেই সংসার করার বিষয়ে অনড় থাকে এবং কিশোরী নিজেকে প্রাপ্তবয়স্ক হিসেবে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দাখিল করে। যদিও এই জন্ম সনদ ভু’য়া বলেছে স্থানীয়রা।

পরে ১৪ মে কিশোরীর মা লালমাই থা’নায় রিক্সা চালক বৃদ্ধ শামসুল হক সামুকে একমাত্র আ’সামি করে একটি অ’পহরণ মা’মলা দা’য়ের করে। মা’মলা করার কিছু ক্ষনের মধ্যেই লালমাই থা’না পু’লিশ এই অসম নব দম্পত্তিকে গ্রে’ফতার করে থা’না হেফাজতে নিয়ে আসে।

শুক্রবার (১৫ মে) বিকেলে কুমিল্লার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেটের ৯নং আমলী আ’দালতে এই অসম দম্পত্তিকে হাজির করা হয়্। আ’দালতের বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যা’জিষ্ট্রেট শামসুর রহমান উভয় পক্ষের শুনানী শুনে বৃদ্ধ রিক্সা চালক শামসুল হক সামুকে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরণ করেন আর কিশোরীকে মা’মলার বা’দী তার মায়ের জিম্মায় দিয়ে দেন।

অপর দিকে, লালমাই থা’নার ভারপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা মো.আইয়ুব জানান, কাবিননামায় দেখা যায়, গত ১০ মে কুমিল্লা সিটি কর্পোশেনের ৭নং ওয়ার্ড এর নিকাহ রেজিষ্ট্রার মুজিবুর রহমান সরকারের কার্যালয়ে ৫ লক্ষ টাকা মোহরানায় বই নং ৫৪, পৃষ্ঠা নং ২৮ ও ক্রমিক নং ৪৪০-এ তাদের বিয়ে রেজিস্ট্রি হয়।

কিন্তু আমরা কাজী মজিবুর রহমান সরকারকে আ’টক করে প্রাথমিক জি’জ্ঞাসাবাদ করলে সে স্বীকার করে যে, কাজি অফিসের ঠিকারা ও সিল মোহর সে ভু’য়া দিয়েছে। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আ’টককৃত কাজীকে নিয়ে অ’ভিযানে রয়েছে বলে থা’নার ওসি এই প্রতিবেদককে নিশ্চিত করেন।

কিশোরী সন্তানকে পেয়ে মেয়ে অ’পহরণ মা’মলার বাদী ও বিশোরীর মা প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন যে, সামু আমাদের সরলতা ও বিশ্বাসের সুযোগ নিয়ে আমার অবুঝ এই মেয়ের স’র্বনাশ করেছে।

আমি সরকারের কাছে দা’বি করব, সরকার যেন সামুর দৃ’ষ্টান্তমূলক শা’স্তি দেয়। যাতে আর কোনো চ’রিত্রহী’ন ও ল’ম্পট আর কোনো মেয়ের এমন স’র্বনাশ করতে না পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here