মতলব জেবি সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র নাহিদ ওরফে রিফাত অবশেষে ব্লাড ক্যান্সারের কাছে হেরে গেলেন।

৭ ফেব্রুয়ারি রোববার মধ্যরাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিশু ক্যান্সার ইউনিটে মৃ্ত্যুবরণ করেন। (ইন্না লিল্লাহি… রাজেউন)।

রোববার বাদ জোহর মতলব দক্ষিণ উপজেলার শীলমুন্দী নিজ গ্রামের বাড়ির সামনে মরহুমের নামাজে জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।জানাযার আগে বক্তব্য রাখেন মতলব পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব মোঃ আওলাদ হোসেন লিটন, সাবেক মেয়র এনামুল হক বাদল।

এর আগে ২২ জানুয়ারি নায়েরগাঁও দিগন্তে  নাহিদের জন্য আর্থিক সহায়তা চেয়ে একটি সংবাদ প্রকাশ করা হয়।

নাহিদ ওরফে রিফাত শীলমুন্দী গ্রামের হতদরিদ্র কামাল হোসেনের ছেলে।

নাহিদ ওরপে রিফাতের বয়স হয়েছিল ১৬ বছর।মতলব জেবি সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র।৮/১০ টি ছেলের মত সেও হেঁসে খেলে আনন্দ উৎসবে লেখা পড়া করতো।হঠাৎ করে নাহিদের দেহে দেখা দেয় ভয়ানক রোগ, ব্লাড ক্যান্সার।বাবা একজন এলাকার ছোট খাট চা বিক্রেতা। হতদরিদ্র পরিবারের ঘরে এত বড় কঠিন রোগে আক্রান্ত নাহিদ বর্তমানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিশু ক্যান্সার ইউনিটের ৩১৯ নং ওয়ার্ডের ২৪ নং বেডে ভর্তি হয়ে চিকিৎসাধীনে ছিলেন।

বিগত ২ বছর যাবৎ নাহিদের চিকিৎসা খরচ চালাতে গিয়ে ঘর ভিটি ছাড়া সবকিছু বিক্রি করে এখন নিঃস্ব প্রায়। তাকে সুস্থ করতে চিকিৎসার জন্য যারা আর্থিকভাবে সহযোগিতা করেছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন নাহিদের পরিবার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here